পরিবর্তনের চেতনায় চতুর্থ বর্ষে অপরাজেয়

7

প্রতিবন্ধী মানুষের কন্ঠস্বর হবার আপ্রাণ চেষ্টায় নিয়োজিত ত্রৈমাসিক অপরাজেয় গুটি গুটি পায়ে তৃতীয় বর্ষ শেষে পা দিলো চতুর্থ বর্ষে। অপরাজেয় বিশ্বাস করে জ্ঞান চর্চাই হতে পারে প্রতিবন্ধী মানুষের অধিকার অর্জনের প্রধান হাতিয়ার এবং মূল শক্তি। তাই তাদের তথ্য পাওয়ার অধিকারকে নিশ্চিত করতে মূলধারার জাতীয় পত্রিকার আঙ্গিকে দেশে প্রথমবারের মত এই ব্যতিক্রমী প্রকাশনাটির উদ্যোগ একদা নেওয়া হয়েছিলো।

 

নানা ঘাত প্রতিঘাতের মধ্যে দিয়ে সামনের দিকে এই এগিয়ে যাওয়ার একমাত্র উদ্দেশ্য প্রতিবন্ধী মানুষদের এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তি সংগঠনগুলোকে সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে সংগঠিত করা। নিজের নিজের অধিকার সম্বন্ধে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর নেতৃত্ব ও ক্ষমতায়ন চর্চায় অনুপ্রেরণা জুগিয়ে যাওয়া। আমরা সবসময় চেষ্টা করেছি সংগঠন কেন্দ্রিক, নেটওয়ার্ক বা দাতা সংস্থার বাইরে গিয়ে সারা দেশের সমগ্র প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর নিজস্ব না বলা কথামালা প্রকাশ করতে। পাশাপাশি জাতিসংঘ প্রতিবন্ধী ব্যক্তি অধিকার সনদ সিআরপিডি এর আলোকে এদেশের নীতিনির্ধারক কর্তাব্যক্তিসহ সরকারি সংশ্লিষ্ট মহলে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বঞ্চনা, বৈষম্য ও অধিকারগুলো তুলে ধরতে।

আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও শুভেচ্ছা পাঠক, লেখক, বিজ্ঞাপনদাতাসহ সংশ্লিষ্ট কর্মীবৃন্দকে যারা অকুন্ঠ সমর্থন ও আপ্রাণ সহযোগিতা দিয়ে গেছেন নিয়মিত। বিশেষত বিভিন্ন ধরণের প্রতিবন্ধী মানুষ যারা ঘরে বসেই লেখা সংগ্রহ, সম্পাদনা থেকে সমস্ত কার্যক্রমে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন সত্যিকার অর্থেই প্রতিবন্ধী মানুষের কন্ঠস্বর হিসেবে এই পত্রিকাটিকে উপস্থাপন করতে, তারা সত্যিই অভিনন্দনের দাবীদার।

 

আমরা স্বপ্ন দেখি ভেদাভেদহীন এমন এক বাংলাদেশের যেখানে সকল প্রতিকূলতার মাঝেও অপরাজেয় এগিয়ে যাবে আপোষহীনভাবে। স্বপ্ন দেখি সকলেই হাতে হাত মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।