আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলাতে অবহেলিত প্রতিবন্ধী মানুষের প্রবেশগম্যতা

34

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঢাকা আন্তর্জাতিক বানিজ্য মেলায় দর্শনার্থী প্রবেশ পথে র‌্যাম্প না থাকায় নানান ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে হুইলচেয়ার ব্যবহারকারীদের। শুধু তাই নয়, মেলার অন্যতম আকর্ষণ প্যাভিলিয়ন গুলোতেও নেই প্রবেশগম্যতা। ফলে ভেতরে যাওয়ার ইচ্ছা সত্বেও বঞ্চিত হচ্ছেন তারা।

সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, নানান হয়রানিতে হুইলচেয়ার সমেত সিঁড়ির পাহাড় পেরিয়ে মেলা প্রাঙ্গনে ঢুকতে পারলেও ইট বিছানো উঁচুনিচু এবড়োথেবড়ো রাস্তায় হুইলচেয়ার চলাচলকারী এবং সহযোগিকে হিমশিম পোহাতে হচ্ছে। টয়লেট গুলোতেও নেই পর্যাপ্ত সুবিধাদি। পুরো মেলা জুড়েই হুইলচেয়ার নিয়ে ঘোরার পথটি অত্যন্ত অমসৃণ যা হুইলচেয়ারে বসে থাকা ব্যক্তির জন্য যেমন কষ্টকর তেমনিভাবে পিছন থেকে যিনি ঠেলে নিয়ে চলেন তার জন্যও কষ্টকর।

এ প্রসঙ্গে মেলায় আগত হুইলচেয়ার ব্যবহারকারী আল আমিন বলেন, “অনেক আগ্রহ নিয়ে মেলায় এসে মূল গেটেই কয়েক ধাপ সিঁড়ির সামনে থমকে যাই। ভাগ্যিস সাথের বন্ধুরা সাহায্য করেছে।” তিনি মনে করেন, আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা প্রতিবন্ধী মানুষদের বাদ দিয়ে আন্তর্জাতিক মানের হতে পারে না। এবং মূল প্রবেশপথ ও ভেতরের বিভিন্ন স্টলের সিঁড়ির বাধা দূরীকরণে স্থায়ী সিমেন্টের র‌্যাম্প অথবা অস্থায়ী কাঠের র‌্যা¤প তৈরির উদ্যোগ নেয়া আয়োজক কমিটির জন্য কোন বিষয় নয়।

 

এদিকে, বিআরবি ক্যাবলস এর প্যাভিলিয়নে র‌্যাম্প থাকায় প্রতিবন্ধী মানুষের পক্ষে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বি-স্ক্যান তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এবং মেলাস্থল ঘুরে বেশ কিছু সমস্যা চিহ্নিত করে সমাধানের উদ্যোগ নিতে মেলা আয়োজক কমিটির দৃষ্টি আকর্ষণও করেন তারা। তবে মেলা প্রাঙ্গনে এ বছর এসব ব্যবস্থা নেয়ার অপরাগতা প্রকাশ করে আগামী বছর থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বাস দেন রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরোর সচিব ড. এ এফ এম মঞ্জুরুল কাদির।