বাড়ি2nd Issue, March 2013৩০ লাখ শহীদের রক্তে কেনা স্বাধীনতার সম্মান রাখতে হবে

৩০ লাখ শহীদের রক্তে কেনা স্বাধীনতার সম্মান রাখতে হবে

জাতি এখন ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে, একদিকে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে সোচ্চার নতুন প্রজন্মের তরুণরা, অন্যদিকে নেপথ্যে যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচানোর জন্যও চলছে নানা আয়োজন । ইতোমধ্যে দেশব্যাপি সহিংসতায় শতাধিক লোক মৃত্যুবরণ করেছে । এ ধরনের উদ্বিগ্নতার মধ্যে আমরা উদযাপন করবো স্বাধীনতা দিবস । দেশজুড়ে সহিংসতার মাঝে উদযাপিত স্বাধীনতা দিবসের তাৎপর্যও ভিন্ন বৈকি! অনেকে বিষয়টিকে হালকাভাবে নিতে পারেন । কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে আমার মনে হয়েছে, পুরো ফেব্র“য়ারি মাস জুড়ে যে সহিংসতা দেশব্যাপি হয়েছে, তা রাজনৈতিক ও সামাজিক সমস্যা । এই সমস্যা সমাধানের জন্য দ্রুত পন্থা খুঁজে বের করা প্রয়োজন ।

মহান স্বাধীনতার মাসে আমরা আমজনতা আশা করবো ৩০ লাখ শহীদের রক্তে কেনা স্বাধীনতার সম্মান যেমন রক্ষা করতে হবে তেমনি দেশের মানুষের জান-মালেরও হেফাজত করতে হবে । আমাদেরকে স্বাধীনতার চেতনা তথা গণতন্ত্র ও দূর্নীতিমুক্ত সমাজ বিনির্মাণের জন্য সম্ভব সব কাজ করতে হবে । সম্পদের সুষম বন্ঠনের মাধ্যমে দারিদ্রমুক্ত দেশ গঠনের জন্য আমাদের সরকারকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে ।

আমরা দুঃখের সাথে লক্ষ্য করছি যে, গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেয়ার জন্য আমাদের সরকারগুলোর কোন কার্যকর পদক্ষেপ নেই । স্বাধীনতার মূল চেতনা ছিল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা । পাকিস্তানী দুঃশাসন হতে মুক্তি লাভ করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করাই ছিল আমাদের স্বপ্ন । অথচ সেই কাংখিত নির্ভেজাল গণতন্ত্র এখনও আসেনি । এখনও গণতন্ত্রের জন্য আমাদের প্রাণ দিতে হয় । আন্দোলন করতে হয় ।

স্বাধীনতার চার দশক পর আজ আমাদের প্রত্যাশা, আমাদের শহীদের স্বপ্নের বাস্তবায়ন হোক, দূর্নীতিমুক্ত, দারিদ্রমুক্ত সমাজ তৈরী হোক । সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক সরকার ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হোক ।

লেখক : কলামিষ্ট, রাজনীতি বিশ্লেষক

সর্বশেষ

বিশেষায়িত বিদ্যালয়ে শিক্ষা উপকরণ সংকট; নানামুখী সমস্যায় প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা

অপরাজেয় প্রতিবেদক পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা, সঠিক রঙের ব্যবহার, সহায়ক উপকরণ, ইন্ডিকেটর বা সঠিক দিকনির্দেশনা এবং কম্পিউটার প্রশিক্ষণে সহায়ক সফটওয়্যার ও অডিও বইয়ের অভাবসহ নানামুখী সমস্যার কারণে সাধারণ...

মাসিক আর্কাইভ

Translate | অনুবাদ