যশোরে ভোট দেয়ার অপরাধে হামলার শিকার শারীরিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি

34

 

যশোর প্রতিনিধিঃ ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট দেয়ার অপরাধে যশোর কেশবপুরের মাদারডাঙ্গা গ্রামের শারীরিক প্রতিবন্ধী কাঠমিস্ত্রি আবুল হোসেনের ওপর নৃশংস হামলা চালিয়েছে দুই যুবক। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় তাকে।

জানা যায়, ১৩ জানুয়ারি আনুমানিক রাত ১০টায় কাজ শেষে পাঁজিয়া বাজারে অবস্থিত নিজের দোকান বন্ধ করে হাতে চালিত রিকশা চালিয়ে গ্রামের বাড়িতে ফিরছিলেন। মাঝপথে দুই যুবক তার পথ আটকে ভোট দেয়ার ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে তিনি ভোট দিয়েছেন জানান। এরপর সাথে সাথেই তারা (যুবকেরা) হাতুড়ি দিয়ে তার মাথা ও হাতে আঘাত করতে থাকে। পরে তার চিৎকারে লোকজন চলে এলে যুবকেরা পালিয়ে যায়।

বেশ কয়েক বছর আগে একটি দুর্ঘটনায় দুই পা হারিয়েও আবুল হোসেন ভেঙ্গে পড়েন নি। কাঠমিস্ত্রির কাজ করেই তিন মেয়ে, স্ত্রী ও মাকে নিয়ে সুখেই দিন যাপন করছিলেন। গ্রামে ২৬ কাঠার মত জমি রয়েছে তার। পরিশ্রম করে নিজেই দোকান দিয়েছেন।
এবার স্ত্রীসহ ভোটকেন্দ্রে গিয়েই বাঁধল বিপত্তি। হামলার কিছুদিন আগে থেকেই হুমকি দেয়া হচ্ছিল তাকে। তার সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে বলেন, ‘রাষ্ট্র আমাকে নিরাপত্তা দিতে পারেনি। হয়ত দেশ ছেড়েই যেতে হবে এবার।’ অপর এক প্রশ্নের জবাবে জানান, ‘কারা তার ওপর হামলা করেছে তিনি ভাল করেই জানেন কিন্তু থানায় অভিযোগ করলে বা নাম প্রকাশ করলে তারা এবার মেরেই ফেলবে।’

 

কেশবপুর থানার ওসির সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি শুনেছেন তবে এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন নি আবুল হোসেন।’