অপরাজেয় ২য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একিভূত সমাজ বিনির্মাণের অঙ্গীকারে কনসার্ট ফর ইনক্লুশন

28

 

তানজিদ শুভ

 

গত ৮ জানুয়ারি’১৫ ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল প্রতিবন্ধী মানুষের সমন্বয়য়ে উন্মুক্ত কনসার্ট। “চলুন, একিভূত সমাজ গড়ি” এই মূল প্রতিপাদ্যে কনসার্ট ফর ইনক্লুশন আয়োজনের উদ্যোগ নেয় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সংগঠন (ডিপিও) বাংলাদেশ সোসাইটি ফর দ্যা চেঞ্জ এ্যান্ড অ্যাডভোকেসি নেক্সাস (বি-স্ক্যান)। প্রতিবন্ধী মানুষের কন্ঠস্বর হিসেবে বি-স্ক্যান কর্তৃক প্রকাশিত ত্রৈমাসিক পত্রিকা অপরাজেয় এর দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজন করা হয় এই উন্মুক্ত কনসার্টের।

 

এতে সূচনা বক্তব্য রাখেন হঠাৎ বৃষ্টি খ্যাত জনপ্রিয় চিত্র নায়ক ফেরদৌস। তার অভিমত; প্রতিবন্ধী মানুষকে যারা অসুস্থ বলেন, তারাই মনে হয় অসুস্থ। সমাজের প্রতিটি ব্যক্তি যদি প্রতিবন্ধী মানুষের অধিকার নিয়ে সচেতন হন তাহলে সে সমাজে আর কোন বৈষম্য থাকবে না। মানুষ আগের চেয়ে সচেতন হয়েছে, তবে সচেতনতা আরও বাড়িয়ে নিজ নিজ জায়গা থেকে যতটুকু সম্ভব এগিয়ে আসতে হবে, কাজ করতে হবে নিজ নিজ অবস্থান থেকে। তিনি নিজের অবস্থান থেকে সচেতনতা তৈরিতে প্রতিবন্ধিতা বিষয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের ঘোষণা দেন।

 

উক্ত কনসার্টে প্রতিবন্ধী শিল্পীদের মধ্য থেকে অংশ নেন চাঁদের কণা, নজরুল ইসলাম, স্বপ্না চাঁদনী ও শাহাবুদ্দিন আহমেদ দোলন প্রমুখ। এছাড়া ব্যান্ড দলের মাঝে জলের গান, শহরতলি, আবর্তন ও নেফারিয়াস সেন্টিনেল দুপুর থেকে রাত অবধি গানে গানে দর্শকদের মাতিয়ে রাখেন। দুপুর থেকেই দর্শক সারি ধীরে ধীরে পূর্ণ হতে থাকে এবং শেষ অবধি দর্শকপূর্ণ বেশ জমজমাট ছিল রবীন্দ্র সরোবরের মুক্তমঞ্চ। অ-প্রতিবন্ধী এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তিগণ সকলেই একি সাথে কনসার্ট উপভোগ করেন। এই কনসার্টে স্বেছাসেবীরাও কাজ করেছেন অ-প্রতিবন্ধী এবং প্রতিবন্ধী মানুষের সমন্বয়ে। একীভূত অংশগ্রহণের উদ্দেশ্যে উপস্থাপনাতেও এই সমন্বয় ধরে রাখা হয়েছে। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন অপরাজেয় এর সম্পাদক সাবরিনা সুলতানা এবং যন্ত্র প্রকৌশলী তানভির আরাফাত ধ্র“ব।

 

কনসার্টে অংশগ্রহণকারীদের শুভেচ্ছা স্মারক তুলে দেন বি-স্ক্যান এর সাধারণ সম্পাদক সালমা মাহবুব। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধী মানুষের দৈনন্দিন জীবনে চলাচলে সমস্যা, বাধা, সীমাবদ্ধতা প্রভৃতি একটি আয়োজনের মাধ্যমে সবাইকে জানানো কিংবা তুলে ধরা সম্ভব নয়। কিন্তু এই কনসার্টের মাধ্যমে সমাজের কিছু মানুষের মাঝে কিছুটা হলেও একীভূত সমাজ বিনির্মাণের স্বপ্নের বীজ ছড়িয়ে দেয়া যায়, তাহলেই অনুষ্ঠানটির আয়োজন সার্থক হবে বলে আমি মনে করি।

অনুষ্ঠান সমাপ্তির আগে উপস্থিত প্রতিবন্ধী মানুষেরা, জলের গান ব্যান্ডের ভোকাল কনক আদিত্য, ব্যান্ড দল শহরতলী এবং স্বেচ্ছাসেবীসহ উপস্থিত সকল দর্শকেরা সমবেত কণ্ঠে আমরা করবো জয়  গানটি গেয়ে অঙ্গীকারাবদ্ধ হন একীভূত সমাজ বিনির্মাণে।

 

এছাড়া উক্ত অনুস্থানে উপস্থিত ছিলেন, জাহিদ ইসলাম;এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার, সিম্ফনি, হাসিন জাহান; ডিরেক্টর অব প্রোগ্রামস- ওয়াটার এইড, শামিম আহমেদ; হেড অব পলিসি এ্যান্ড এ্যাডভোকেসি – ওয়াটার এইড, বশির আহমেদ; এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার- নিও জিপার কো¤পানি লিমিটেড, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ ম্যানেজিং ডিরেক্টর – খুজিস্তা নুর-ই নাহরিন প্রমুখ।

আয়োজনের পৃষ্ঠপোষকতায় ছিল সিম্ফনি,ওয়াটার এইড, সাজিদা ফাউন্ডেশন, টিম, নিও জিপার কোমানি লিমিটেড। এছাড়াও মিডিয়া পার্টনার ছিল; সময় টেলিভিশন, এটিএন নিউজ, রেডিও টুডে, এবিসি রেডিও, দৈনিক সমকাল এবং বিডিনিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম।